নীড়পাতা বাংলাদেশ সিলেট আজ গোলাবশাহ কিশোর সংঘর ৪০তম প্রতিষ্টা বার্ষিকী।

আজ গোলাবশাহ কিশোর সংঘর ৪০তম প্রতিষ্টা বার্ষিকী।

58
0

সরওয়ার হোসেন:

আজ গোলাবশাহ কিশোর সংঘর ৪০তম প্রতিষ্টা বার্ষিকী।
বিয়ানীবাজার উপজেলার প্রাচীন এই সংগঠন আজ থেকে ৪০ বছর আগে তার যাত্রা শুরু করে এখনো গৌরভের সাথে মাথা উঁচু করে এগিয়ে যাচ্ছে।
ইতিহাস ঐতিহ্যে আর গুণীজনে ভরপুর কসবা,খাসা গ্রামের এই সংগঠনের সামাজিক উন্নয়ন মূলক কার্যক্রম বৃহত্তর সিলেটের সামাজিক সংগঠন গুলোর মধ্যে আলাদাভাবে গুরুত্ব বহন করে।
শিক্ষা-সংস্কৃতি-সমাজসেবা-
এসো সবাই মিলে গ্রাম গড়ি…সামাজিক উন্নয়নের এই শ্লোগানটি হচ্ছে এই সংগঠনের মূলমন্ত্র,প্রতিষ্ঠা লগ্নের শুরু থেকে আমাদের প্রাণপ্রীয় সংগঠন সামাজিক বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কাজে বিশেষ অবদান রেখে আসছে!

বিশেষ করে এলাকার দুইটি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও একটি কসবা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, কসবা আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, খাসা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।বিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রীদের মধ্যে লেখাপড়ায় এগিয়ে যাওয়ার অনুপ্রাণিত করতে বৃত্তির ব্যবস্থা এবং এলাকার গরীভ ও মেধাবী ছাত্র ছাত্রীদের মধ্যে বিনামূল্যে বই সহ বিভিন্ন শিক্ষা উপকরণ বিলি করে আসছে।

(বর্তমানে বই হাই স্কুল গুলোতে সরকারী ভাবে বই প্রদান করা হয় কিন্তু আগে এই বই কিনতে হতো)কৃতি ছাত্র ছাত্রীদের বই সহ ভর্তির ব্যাপারে সংগঠনের ভূমিকা অনস্বীকার্য।

খেলাধুলার কেত্রে গোলাবশাহ্ কিশোর সংঘ ক্রিকেট একদশের নাম বিয়ানীবাজার ক্রিকেট ডায়েরিতে স্বর্ণাক্ষরে লিখা আছে,উক্ত ক্রিকেট ক্লাবটি বিয়ানীবাজারের প্রাচীন ক্রিকেট ক্লাব গুলো র একটি,এক সময় এই ক্লাবের উদীয়মান ক্রিকেটারা বিয়ানীবাজার উপজেলা সহ পার্শবর্তি থানা ও জেলা পর্যায়ে ভালো খেলে অনেক শিরোপা অর্জন করে এনেছেন।

খেলাধুলার পাশাপাশি গোলাবশাহ্ কিশোর সংঘ একটি দক্ষ ক্রিড়া আয়োজক ও বটে, প্রতিষ্ঠার শুরু থেকে প্রতি বছর বিয়ানীবাজারে বড় বড় ক্রিকেট টুর্নামেন্ট আয়োজন করে আসছে,উক্ত টুর্নামেন্টে গুলোতে বিয়ানীবাজার উপজেলা সহ জাতীয় পর্যায়ের ক্রিকেটারেরা বিভিন্ন দলের হয়ে অংশগ্রহণ করে থাকেন,এর মধ্যে উল্লেখযৌগ টুর্নামেন্টে হচ্ছে(বিয়ানীবাজার প্রিমিয়ার লিগ বা BPL)

সংগঠনটির রয়েছে নিজস্ব একটি দোতলা ভবন এবং নিজস্ব পাঠাগার,যেখানে সংগৃহীত আছে কয়েক হাজার বই,এলাকার তরুণ যুবকেরা তাদের অহসরের বেশিরভাগ সময় ক্লাবের লাইব্রেরিতে কাটান।

সংগঠনের সকল কাজের মধ্যে একটি সমাজসেবা মূলক গুরুত্বপূর্ণ কাজ হচ্ছে এলাকার কোন রাস্তাঘাট খারাপ হলে সংগঠনের সবাই মিলে তার মেরামত এবং বৃক্ষ রোপণ।কসবা ও খাসা গ্রামের প্রায় প্রতিটি রাস্তায় কিশোর সংঘ প্রায় প্রতি বছর বৃক্ষ রোপণ করে আসছে,এই বৃক্ষ যেমন পথিককে ছায়া দেয় ঠিক তেমনি জলবায়ু রক্ষায় বৃক্ষ রোপণের গুরুত্বপূর্ণ অপরিসীম।

সংগঠনের ভবনে নিজের বড়ো পরিসরে দুইটি হলরোম রয়েছে যেখানে সংগঠনের মিটিং এবং গ্রাম্য শালিষকাজ সম্পাদন করা হয়।
আর একটি কথা না বললে না হয় এলাকার বেকার যুবক ও মহিলাদের স্বাবলম্বী করতে কিশোর সংঘ কারিগরী শিক্ষার ব্যবস্থা করে থাকে,নিজেদের নিজস্ব লেভেল কম্পিউটার প্রশিক্ষণ এবং শেলাই কাজ শেখানো সহ সেলাই মেশিন বিতরণ এই সংগঠনের প্রশংসনীয় কাজের মধ্যে অন্যতম একটি।

৪০ বছরের পুরনো এই ঐতিহ্যবাহী সংগঠনের বিভিন্ন সময়ে সংগঠনে পদপ্রাপ্ত সদস্যগণ ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছেন বিশ্বের বিভিন্ন উন্নয়নশীল দেশে,এলাকায় অসহায় মানুষের গৃহ নির্মাণ এবং সামাজিক বিভিন্ন অনুষ্ঠানে তাদের অংশগ্রহণ কোন ভাবে ছোট করে দেখার উপায় নেই।

সাংস্কৃতিঃসংগঠনের মূল নীতির একটি,বিভিন্ন জাতীয় দিবস গুলোতে সংগঠনের পক্ষ থেকে এলাকার বিদ্যালয়ে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক ও পুরস্কার বিতরণীর আয়োজন করা হয়,নিজ এলাকা সহ বিয়ানীবাজার উপজেলার মানুষ জনকে আনন্দ দিতে সংগঠনের সদস্যরা মন্চ নাটকের আয়োজন করেন,এবং উক্ত নাটক গুলোতে সংগঠনের সদস্যরা অভিনয় করে ফুটিয়ে তোলেন সাধীনতা যুদ্ধের ইতিহাস সহ শিক্ষণীয় অনেক কিছু।

বাংলাদেশের নাম করা শিল্পীদের আগমনে মুখরিত হয়ে উঠে সংগঠনের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী গুলি,কিশোর সংঘের ব্যানারে বিয়ানীবাজারে এসে গান করে গেছেন প্রয়াত সংগীত শিল্পী খালিদ হাসান মিলু,কুমার বিশ্বজিত,ফকির আলমগীর,ফিরোজ নাই,এস,ডি রুবেল,কুদ্দুস বয়াতি,ফরিদা পারভীন সহ দেশ বরেণ্য শিল্পী বৃন্দ।

এছাড়া বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে,দেশ বিদেশের বুদ্ধিজীবী, প্রফেসর,দেশ বরেণ্য রাজনৈতিক ও সামাজিক গুণী মানুষের আগমন ঘটেছে এই কিশোর সংঘে।
প্রাণ প্রিয় এই সংগঠনের কথা লিখতে গেলে লিখে শেষ করা যাবে না,সংগঠনের ৪০তম প্রতিষ্টা বার্ষিকী উপলক্ষে নিজের চোখে দেখা অল্প কিছু স্মৃতিচারণ করলাম।

গোলাবশাহ্ কিশোর সংঘের কার্যক্রম আরও গতিশীল হোক,৪০ বছরের ঐতিহ্যকে লালল করে এগিয়ে যাক বহুদূর,দেশে এবং প্রবাসে সংগঠনের সকল সদস্য ও শুভানুধ্যায়ী সবাইকে আমার আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।।

রিপ্লাই করুন

অনুগ্রহ করে আপনার মন্তব্য লিখুন
অনুগ্রহ করে আপনার নাম লিখুন