নীড়পাতা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি আর.এম ইন্সটিটিউটের অভূতপূর্ব সাফল্য অব্যাহত

আর.এম ইন্সটিটিউটের অভূতপূর্ব সাফল্য অব্যাহত

সম্ভাবনা ডেস্ক।আর,এম ইন্সটিটিউটের অভূতপূর্ব সাফল্য
অব্যাহতঃ বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে জাতীয় দক্ষতামান বেসিক কোর্সের জুলাই-ডিসেম্বর ২০১৯ সেশনের (৬/৩) মেয়াদী বিভিন্ন ট্রেডের পরীক্ষার পরীক্ষার ফল প্রকাশ।

বাংলাদেশে উপজেলা পযার্য়ে ৬ষ্টবারের মতো কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে।
আরএম কম্পিউটার ইন্সটিটিউট এন্ড ইংলিশ ল্যাংগুয়েজ সেন্টার এর মাধ্যমে
বিয়ানীবাজার,পঞ্চখন্ড হরগোবিন্দ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

এবারের পরীক্ষায় বিভিন্ন ট্রেডে মোট ১১৯জন শিক্ষার্থী অংশ গ্রহণ করে।এদের মধ্যে ১১২ শিক্ষার্থী কৃতিত্বের সহিত উর্ওীন হয়।
তন্মধ্যে
(১০৯ জন শিক্ষার্থী এ+) ও (৩ জন এ)
পাওয়ার গৌরব অর্জন করেছে।
উল্লেখ্য, সকল পরীক্ষার্থীই আরএম কম্পিউটার ইন্সটিটিউট এন্ড ইংলিশ ল্যাংগুয়েজ সেন্টারের শিক্ষার্থী ছিলেন।

দীর্ঘ ১২বছর থেকে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অনুমোদিত ইন্সটিটিউট
হিসেবে RM-কারিগরি শিক্ষায়-অাইটি,
টেকনিক্যাল,ইঞ্জিনিয়ারিং,ইংলিশ
ল্যাংগুয়েজ) সেন্টারের বিভিন্ন ট্রেডে শিক্ষার্থীদের দক্ষ মানব ম্পদ হিসেবে গড়ে তুলতে প্রশিক্ষণ দিয়ে ব্যাপক সাফল্য অর্জন করেছে। এই সময়ের মধ্যে বিভিন্ন ট্রেডে প্রায় ৬ হাজার শিক্ষার্থীদের প্রশিক্ষন প্রদান করেছে।

প্রশিক্ষণ নিয়ে হাজারো শিক্ষার্থী এখন ব্যাংক, স্কুল-কলেজ, বিভিন্ন মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানি,এনজিও, পৌরসভা/উপজেলা অফিস সহকারী,
কম্পিউটার অপারেটর ও ইউনিয়ন তথ্য সেবা কেন্দ্র,সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন
প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আছেন।
অাবার অনেকেই ইউরোপ, আমেরিকা সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশেও সফলতার সাথে কাজ করে যাচ্ছে।

প্রতিবারের নেয়ায় এবার ও সারা বাংলাদেশে উপজেলা পযার্য়ে শ্রেষ্ঠত্ব
অব্যাহত রেখেছে।

অাজ থেকে প্রায় ১৬ বছর অাগে ২০০৪ সালে ইন্সটিটিউটি জম্ম লগ্ন থেকে হাটি হাটি পা পায়ের এর মাধ্যম
ইন্সটিটিউটির পরিচালক এনাম উদ্দিন (এনু) কর্ম দক্ষতায় অাজকে বাংলাদেশ
উপজেলা পযার্য়ে RM-শ্রেষ্ঠতের অাসনে অাসীম হয়েছে।

আরএম কম্পিউটার ইন্সটিটিউট এন্ড ইংলিশ ল্যাংগুয়েজ সেন্টারের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক এনাম উদ্দিন এনু বলেন, বর্তমান সময়ে বাংলাদেশ তথা বহির্বিশ্বে চাকুরী-ব্যবসা সহ যে কোন ক্ষেত্রে সাফল্য পেতে হলে তথ্য প্রযুক্তি ও কারিগরী শিক্ষার বিকল্প নেই। কেবল একাডেমীর সনদ অর্জন করেই এখন আর জীবন যুদ্ধে সাফল্য পাওয়া সম্ভব নয়। সেক্ষেত্রে একাডেমীক সার্টিফিকেটের পাশাপাশি দক্ষতা অর্জনও অতীব গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। তাই লেখাপড়ার পাশাপাশি তথ্য প্রযুক্তি ও কারিগরী শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে আমাদের নব প্রজন্ম যাতে বিশ্বায়নের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় এগিয়ে যেতে পারে,

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ কারিগরী শিক্ষাবোর্ডের অধীনস্থ সদ্য সমাপ্ত বিভিন্ন ট্রেডের পরীক্ষায় আমাদের সেন্টারের শিক্ষার্থীরা যে সাফল্য বয়ে এনেছে সেজন্য আমি গর্বিত। এই গৌরব আমাদের একার নয়, এ গৌরব গোটা বিয়ানীবাজারবাসীর।

রিপ্লাই করুন

অনুগ্রহ করে আপনার মন্তব্য লিখুন
অনুগ্রহ করে আপনার নাম লিখুন