নীড়পাতা ফিচারড ফ্রিল্যান্সিং করেই প্রতি মাসে লক্ষাধিক টাকা আয় সিলেটের মিন্টুর

ফ্রিল্যান্সিং করেই প্রতি মাসে লক্ষাধিক টাকা আয় সিলেটের মিন্টুর

ফ্রিল্যান্সিং করেই প্রতি মাসে লক্ষাধিক টাকা আয় সিলেটের মিন্টুর

বি

ফাউজুল আজিম মিন্টু (২৭)। তার বাড়ি সিলেটের বিয়ানীবাজার পৌরসভার সুপাতলা গ্রামে। এলাকার সবার কাছে পরিচিত বেসরকারি একটি কারিগরী ইন্সটিউটিটের কম্পিউটার প্রশিক্ষক হিসেবে। কিন্তু অনলাইন জগতে তার আরেক পরিচয় একজন সফল ফ্রিল্যান্সার কিংবা এ বিষয়ে একজন দক্ষ প্রশিক্ষক হিসেবে। চাকরির পাশাপাশি ফ্রিল্যান্সিং করে মাসে প্রায় এক লাখ টাকা আয় করেন মিন্টু। এখন তিনি অন্যদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন অনলাইনে কাজ করে উপার্জন করার।

ফাউজুল আজিম মিন্টু জানান, বর্তমানে চাকরি পাওয়া খুবই কঠিন বিষয় হয়ে পড়েছে। হাজার হাজার বেকার ঘুরে বেড়াচ্ছেন। অনলাইনে প্রচুর কাজ রয়েছে। এখান থেকে প্রতি মাসে লাখ লাখ টাকা আয় করা সম্ভব। তাই চাকরির পেছনে না ঘুরে একটা কোর্স করে অনলাইনে কাজ করেও স্বাবলম্বী হওয়া যায়।

এক সময় মিন্টুর পকেটেও ১০ টাকা ছিল না। প্রয়োজনের সময় হাত পাততে হতো পরিবারের বড়দের ওপর। বিষয়টা মেনে নিতে অনেকটা কষ্ট হতো মিন্টুর। নিজে আত্মনির্ভরশীল না হওয়ার তাগিদে কষ্ট করে সফল হওয়ার গল্প নিজেই জানালেন তিনি। মিন্টু জানান, কৌতুহলবসত অনলাইনে আর্নিং বিষয়ে ঘাটাঘাটি করতে গিয়ে তিনি আগ্রহী হয়ে উঠেন ফ্রিল্যান্সিং পেশার প্রতি। পরবর্তীতে স্বাবলম্বী হবার লক্ষ নিয়ে কাজ করতে শুরু করেন মিন্টু। প্রথমদিকে অনেক প্রতারণা ও বিড়ম্বনার শিকার হলেও অদম্য চেষ্টায় তিনি এখন একজন সফল উদ্যোক্তা। ফ্রিল্যান্সিংয়ের সাথে যুক্ত হওয়ার এক বছরও পার না হলেও মিন্টুর এই প্লাটফর্ম থেকে মাসিক আয় প্রায় ১ লাখ টাকা। মিন্টুর মতে, অনলাইনে আর্নিং কাজে শিক্ষাগত যোগ্যতা বাঁধা হতে পারেন না। যেকোন বয়সী, যেকোন পেশার মানুষ যুক্ত হতে পারেন এর সাথে।

একাধিক প্লাটফর্মে দেশি-বিদেশি ভায়ারদের চাহিদা অনুযায়ী কাজ করার পাশাপাশি নিজে গড়ে তুলেছেন ‘অনলাইন আর্নিং টিপস’ নামে একটি অনলাইন ভিত্তিক প্রশিক্ষণ সেন্টার। যার মাধ্যমে অনলাইন আর্নিংয়ের বিভিন্ন কলাকৌশল ও করণীয় বিষয়ে পেইড আপ প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন দেশ-বিদেশের প্রায় অর্ধ শতাধিক প্রশিক্ষনার্থী। এছাড়া বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগে আয়োজিত ফ্রিল্যান্সিং ও আউটসোর্সিং বিষয়ে সভা-সেমিনার ও প্রশিক্ষণ কোর্সে প্রশিক্ষক হিসেবেও কাজ করেন মিন্টু।

ফ্রিল্যান্সার ফাউজুল আজিম মিন্টু সমাজের শিক্ষিত বেকার যুবকদের চাকরি খোঁজার পাশাপাশি অনলাইনে উপার্জনের বিভিন্ন কোর্স করে আয় করার আহ্বান জানান। তিনি জানান, অনলাইনে কাজের অভাব নেই। দক্ষ কাজের লোকের অভাব। তিনি ‘অনলাইন আর্নিং টিপস’-এ কোর্স করান নতুনদের। আবার অনেককে হাতে-কলমেও শেখান। এ কোর্সসহ বিভিন্ন কোর্স করে শিক্ষিত তরুণ-তরুণী ও ছাত্র-ছাত্রীদের প্রশিক্ষণ নিয়ে ফ্রিল্যান্সিংয়ে ক্যারিয়ার গড়ার আহ্বান জানান।

রিপ্লাই করুন

অনুগ্রহ করে আপনার মন্তব্য লিখুন
অনুগ্রহ করে আপনার নাম লিখুন