নীড়পাতা ফিচারড শ্রদ্ধেয় আব্দুর রহমান স্যার ছিলেন পঞ্চখন্ডের শিক্ষার আলোকবর্তিকা -মোঃ নাজিম উদ্দিন

শ্রদ্ধেয় আব্দুর রহমান স্যার ছিলেন পঞ্চখন্ডের শিক্ষার আলোকবর্তিকা -মোঃ নাজিম উদ্দিন

শ্রদ্ধেয় আব্দুর রহমান স্যার ছিলেন পঞ্চখন্ডের শিক্ষার আলোকবর্তিকাঃ
•••••••••••••••••••••••••••••••••••••••••
মৃত্যু চিরসত্য।মানুষ জন্মের সাথে সাথে মৃত্যুকে আলিঙ্গন করেই পৃথিবীতে আসে।তাই মৃত্যুকে এড়িয়ে যাবার কোন সুযোগ নেই।মৃত্যু মানে দঃখ,মৃত্যু মানে কষ্ট,মৃত্যু মানে যন্ত্রনা,মৃত্যু মানে বেদনার।তবে কিছু কিছু মৃত্যু মেনে নেয়া এতটাই কষ্টকর আর হ্নদয় বিদারক যার কোন ব্যাখ্যা নেই।পিএইচজি হাইস্কুলের সাবেক সহকারী প্রধান শিক্ষক আমাদের সবার প্রিয় পিতৃতুল্য শ্রদ্ধেয় আব্দুর রহমান স্যার আজ মহান আল্লাহর ডাকে সাড়া দিয়ে চলে গেলেন না ফেরার দেশে।প্রিয় শিক্ষকের মৃত্যুতে দেশে-বিদেশে অবস্হানরত উনার হাজার হাজার ছাত্র ও শুভাকাংখীরা আজ শোকে মুহ্যমান।তিনি ছিলেন বিয়ানীবাজার তথা পঞ্চখন্ডের একজন আদর্শ শিক্ষক তথা জ্ঞানের আলোকবর্তিকা যিনি সারা জীবন তার ছাত্রদের মধ্যে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিয়েছেন।উনার বিলিয়ে দেয়া শিক্ষার আলোয় আলোকিত হয়ে তার প্রিয় ছাত্ররা দেশ ও সমাজকে যেমন আলোকিত করেছেন এবং করছেন তেমনি সারা বিশ্বে ছড়িয়ে রয়েছেন অসংখ্যজন শিক্ষার আলোয় আলোকিত হয়েই।তাই বলা যায় আমরা আজ হারিয়েছি জ্ঞানের এক আলোকিত ভান্ডারকে।তিনি যেমন ছিলেন বিয়ানী বাজারের সর্বজন শ্রদ্ধেয় ব্যক্তিত্ব তেমনি ছিলেন শিক্ষার আলোকবর্তিকা।সারা বিয়ানী বাজার জুড়ে অজ্ঞতার অন্ধকার দুর করে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে জীবনভর তিনি যে ভুমিকা পালন করে গেছেন তা সত্যি অতুলনীয়।পঞ্চখন্ড তথা বিয়ানী বাজারে শিক্ষা বিস্তারে ও প্রসারে তিনি যে অগ্রনী ভুমিকা পালন করে গেছেন তা বলার অপেক্ষা রাখেনা।তাই বিয়ানী বাজারের প্রতিটি মানুষ আজ আপনজন হারানোর ব্যথায় কাতর।শ্রদ্ধেয় আব্দুর রহমান স্যারের মত নিঃস্বার্থ,নিবেদিতপ্রান জ্ঞানের ভান্ডার সমৃদ্ধ শিক্ষক যুগে যুগে জন্ম গ্রহন করেন না।আমরা বিয়ানীবাজার বাসী আজ যাকে হারিয়েছি তার শুন্যত্য অপুরনীয়।আমি অনেকবারই বলেছি আমার জীবনে দেখা শ্রেষ্ট শিক্ষক ছিলেন শ্রদ্ধেয় আব্দুর রহমান স্যার।বিশেষ করে পিএইচজি হাইস্কুলের স্বর্নালী সময়ের শিক্ষকরা একে একে চলে যাচ্ছেন পৃথিবীকে বিদায় জানিয়ে আর সাথে এক এক করে নিভে যাচ্ছে সকল আলোর প্রদীপ।যাদের আলোয় আলোকিত আজ পুরো বিয়ানী বাজার তথা দেশ।শ্রদ্ধেয় আব্দুর রহমান স্যারের মৃত্যুর মধ্য দিয়ে আমরা আজ হারালাম আরেক শিক্ষার আলোকবর্তিকাকে।প্রিয় স্যারের স্কুলের করিডোরে আর সেই সদর্পে বিচরন দেখতে পাবো না।ক্লাসে দুষ্টামির জন্য উচ্চ স্বরে আওয়াজ শুনতে পাবো না যার আওয়াজ শুনলে অন্যান্য ক্লাসের ছাত্ররা পর্যন্ত চুপসে যেত।পরীক্ষায় ভালো ফলাফল করলে আর বুকে জড়িয়ে ধরবেন না।এককথায় পুরো স্কুল প্রাঙ্গন জুড়ে স্যারের সদর্পে বিচরন আর দেখতে পারবো না।শিক্ষা জীবন শেষেও স্যারের সাথে দেখা হলে জীবন সম্পর্কে আর উপদেশ শুনতে পাবো না।আজ পুরো বিয়ানী বাজার জুড়ে মানুষের হ্নদয়ে কান্নার আওয়াজ বাতাসে ভেসে বেড়াচ্ছে।বিশ্বব্যাপি ছড়িয়ে থাকা স্যারের প্রিয় ছাত্রদের চোখের পানির সাথে হ্নদয়ের স্মৃতিগুলো যেন ভাসছে।স্যার বেচে থাকবেন অনন্তকাল তার হাজার হাজার প্রিয় ছাত্রদের মনে যাদেরকে তিনি শিক্ষার আলোয় আলোকিত করে গেছেন।পরপারে মহান আল্লাহ যেন আমাদের প্রিয় স্যারকে জান্নাতের সর্বোচ্চ আসন দান করেন এই দোয়া করি।আমিন॥
“মোঃ নাজিম উদ্দিন”

রিপ্লাই করুন

অনুগ্রহ করে আপনার মন্তব্য লিখুন
অনুগ্রহ করে আপনার নাম লিখুন