নীড়পাতা ফিচারড শ্রদ্ধেয় তমাল স্যার-৮০ দশকের পিএইচজি হাইস্কুলের একজন আদর্শবান তরুন শিক্ষকের গল্প –...

শ্রদ্ধেয় তমাল স্যার-৮০ দশকের পিএইচজি হাইস্কুলের একজন আদর্শবান তরুন শিক্ষকের গল্প – মোঃ নাজিম উদ্দিন

শ্রদ্ধেয় তমাল স্যার-৮০ দশকের পিএইচজি হাইস্কুলের একজন আদর্শবান তরুন শিক্ষকের গল্পঃ
••••••••••••••••••••••••••••••••••••
৮০’র দশকে ঐতিহ্যবাহী পিএইচজি হাইস্কুলের অভিজ্ঞ ও সুনামধন্য শিক্ষকদের ভীড়ে যে কয়জন তরুন শিক্ষক আপন মহিমায় উদ্ভাসিত ছিলেন তাদের মধ্যে শ্রদ্ধেয় তমাল স্যার একজন ছিলেন।নম্র,ভদ্র, স্বল্পভাষী ও সদা হাস্যজ্জল শিক্ষক হিসাবে সবার কাছে যেমন পরিচিত ছিলেন তেমনি ছাত্রদের কাছেও জনপ্রিয় ছিলেন।শিক্ষকতার বাহিরেও যেকোন মানুষের সাথে উনার ব্যবহার ও আচরন সবাইকে মুগ্ধ করতে বাধ্য।এককথায় একজন নিখাদ ভদ্রলোক এবং আদর্শ শিক্ষক বলতে যা বুঝায় শ্রদ্ধেয় তমাল স্যার ছিলেন তেমনি একজন।ক্লাসে ছাত্রদের পাঠদানে ছিলেন অত্যান্ত যত্নবান যাতে পড়ালেখায় স্যারের কাছে ফাকি দেয়ার কোন সুযোগ ছিল না।ক্লাসে পাঠদানের কোন বিষয় বুঝতে অসুবিধা হলে স্যার বার বার বুঝিয়ে দিতেন।ছাত্রদের আদর,সোহাগ,ভালোবাসা দিয়ে খুব সহজেই আপন করে নিতেন।এমন একজন নীতিবান-আদর্শ শিক্ষককে কি ছাত্ররা ভুলে থাকতে পারে? শৈশব কালের প্রিয় সেই শিক্ষকের স্মৃতিগুলো আজও মনের পর্দায় উকি দেয়।উনার সেই চিরচেনা ভঙ্গিমায় চলাফেরা ও হাস্যজ্জল মুখখানা আজও চোখের সামনে ভাসে।দীর্ঘদিন পর ২০১৭ সালের কোন এক বৃষ্টিস্নাত দুপুরে আমরা কয়েকজন বন্ধু মিলে স্কুলে বেড়াতে গিয়েছিলাম।আমাদের আসার খবর শুনে স্যার ক্লাস শেষ করে দ্রুত অফিসে চলে আসেন আমাদের সাথে দেখা করতে।বাহিরে বৃষ্টির রিমঝিম আওয়াজের ফাকে স্যারের সাথে কত কথা,কত গল্প,কত স্মৃতি তা কি সহজে ভুলা যায়?৮০’র দশকের সেই তরুন শিক্ষককে ২০১৭ সালে এসে দেখলাম বয়সের ছাপ পড়েছে পুরো শরীরে।তরুন বয়সের আমাদের সেই প্রিয় স্যারের সাথে বর্তমান সময়ে স্যারের চেহারায় কত পার্থক্য।তবে এত পরিবর্তনের মধ্যেও বদলেনি স্যারের সেই চিরচেনা হাসিটা।বয়স বৃদ্ধির সাথে সাথে শিক্ষকতায় অভিজ্ঞতার ভান্ডার যে অনেক সমৃদ্ধ হয়েছে তাতে কোন সন্দেহ নেই।সেদিনই স্যার আমাদের জানিয়েছিলেন শিক্ষকতা জীবনের অবসরের খুব কাছাকাছি চলে এসেছেন।আসলে জীবনটা সময়ের ফ্রেমে বন্দি তাই জীবনের কোন না কোন সময় মানুষকে তার কর্মের সমাপ্তি টানতে হয়।উনার হাতে গড়া হাজার হাজার ছাত্রদের মনে স্মৃতির ভালোবাসায় অক্ষয় হয়েই থাকবেন। অবসর জীবনে স্যার ভালো থাকুন,সুস্হ থাকুন এই প্রত্যাশা করি।সেই সাথে স্যারের দীর্ঘায়ু কামনা করি।
“মোঃ নাজিম উদ্দিন”

রিপ্লাই করুন

অনুগ্রহ করে আপনার মন্তব্য লিখুন
অনুগ্রহ করে আপনার নাম লিখুন