নীড়পাতা খেলাধুলা ষষ্ঠ বিপিএলে যা কিছু সেরা

ষষ্ঠ বিপিএলে যা কিছু সেরা

8
0

সম্ভাবনা ডেস্ক:

ব্যাটে-বলে আলো ছড়িয়ে টি-টুয়েন্টির চার-ছক্কার লড়াই বিপিএলের ষষ্ঠ আসরের পর্দা নেমেছে। ব্যাটসম্যানদের দাপটের খেলায় পারফরম্যান্সে পিছিয়ে থাকেননি বোলাররাও। শুক্রবার কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের ঘরে গেছে শিরোপা। দেখে নেয়া যাক এবারের বিপিএলে সেরা কি, কারা-

টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক: রাইলি রুশো, ১৪ ম্যাচে ৫৫৮ রান। রংপুর রাইডার্স।

টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহক: সাকিব আল হাসান, ১৫ ম্যাচে ২৩ উইকেট। ঢাকা ডায়নামাইটস।

দলীয় সর্বোচ্চ সংগ্রহ: ২৩৯, চিটাগং ভাইকিংসের বিপক্ষে রংপুর রাইডার্সের।

এক ম্যাচে সর্বোচ্চ রান: ৪০৬ রান, চিটাগং ভাইকিংস ও রংপুর রাইডার্স।

সর্বোচ্চ ব্যবধানে জয়: ১০৫, খুলনা টাইটানসের বিপক্ষে জিতেছিল ঢাকা ডায়নামাইটস।

সর্বনিম্ন ব্যবধানে হার: ১, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের কাছে হারে ঢাকা ডায়নামাইটস।

সর্বোচ্চ মি. এক্সট্রা: ২৪, খুলনা টাইটানসের বিপক্ষে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের করা ২৩৭ রানের মধ্যে ২৪ রানই ছিল মি. এক্সট্রার অবদান।

ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ইনিংস: অপরাজিত ১৪১, তামিম ইকবাল। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের হয়ে ঢাকা ডায়নামাইটসের বিপক্ষে, ফাইনালে।

সর্বোচ্চ স্ট্রাইকরেট: ২০৬.৮৪! থিসারা পেরেরা। (অন্তত ১০০ রান করেছেন এমন ব্যাটসম্যানদের মধ্যে লঙ্কান অলরাউন্ডারদের স্ট্রাইকরেটই সেরা)।

বেশি অর্ধশতক: ৫টি, রাইলি রুশো। রংপুর রাইডার্স।

বেশি শূন্য দেখা ব্যাটসম্যান: মাশরাফী বিন মোর্ত্তজার, দুবার রানের দেখা পাননি রংপুর অধিনায়ক।

সর্বোচ্চ ছক্কা: ২৮টি, নিকোলাস পুরান।

এক ম্যাচে সবচেয়ে বেশি ছক্কা: ১১টি, তামিম ইকবাল।

এক ম্যাচে সর্বোচ্চ স্ট্রাইকরেট: থিসারা পেরেরা। ২৮৪.৬১, চিটাগং ভাইকিংসের বিপক্ষে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের হয়ে ২৬ বলে ৭৪ রান করেন লঙ্কান অলরাউন্ডার।

সেরা বোলিং: কামরুল ইসলাম রাব্বির, ১০ রানে ৪ উইকেট। রাজশাহী কিংসের হয়ে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ায়নসের বিপক্ষে।

এক ইনিংসে সবচেয়ে কিপ্টে বোলিং: লিয়াম ডসন। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের হয়ে সিলেট সিক্সার্সের বিপক্ষে ৩ ওভার বল করে মাত্র ৪ রান দেন খণ্ডকালীন এ স্পিনার। উইকেট নেন ২টি।

সবচে খরুচে বোলার: মোহাম্মদ সাদ্দাম। খুলনা টাইটানসের এ পেসার কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের বিপক্ষে ৪ ওভারে বিলিয়েছেন ৫৯ রান।

সর্বোচ্চ ডিসমিসাল: নুরুল হাসান সোহান, ১৫ ম্যাচে ১৯বার ব্যাটসম্যানকে উইকেটের পেছনে আউটে জড়িত ছিলেন ঢাকা ডায়নামাইটসের উইকেটরক্ষক।

সর্বোচ্চ ক্যাচ: মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। পাঁচ আসরে ৪০ ক্যাচ নিয়েছেন।

এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ক্যাচ: সাব্বির রহমান, দুই ম্যাচে ৪টি করে ক্যাচ নিয়েছেন।

আসরে সর্বোচ্চ ক্যাচ: আফিফ হোসেন। ১২ ম্যাচে ৯ ক্যাচ।

উইকেটের হিসেবে সবচেয়ে বড় জুটি: তৃতীয় উইকেট জুটিতে, অ্যালেক্স হেলস ও এবি ডি ভিলিয়ার্স, অবিচ্ছিন্ন ১৮৪ রান। রংপুর রাইডার্সের হয়ে।

রানের হিসেবে সবচেয়ে বড় জুটি: অ্যালেক্স হেলস ও এবি ডি ভিলিয়ার্স, অবিচ্ছিন্ন ১৮৪ রান।

সূত্রঃ চ্যানেল আই অনলাইন।

রিপ্লাই করুন

অনুগ্রহ করে আপনার মন্তব্য লিখুন
অনুগ্রহ করে আপনার নাম লিখুন